Welcome to olpokotha

বাংলা সাহিত্যের অল্প সংকলন

শুরু হোক পথচলা !

Member Login

Lost your password?

Not a member yet? Sign Up!

না বাঁচাবে আমায় যদি

না বাঁচাবে আমায় যদি মারবে কেন তবে? কিসের তরে এই আয়োজন এমন কলরবে?। অগ্নিবাণে তূণ যে ভরা, চরণভরে কাঁপে ধরা, জীবনদাতা মেতেছ যে মরণ-মহোৎসবে ॥ বক্ষ আমার এমন ক’রে বিদীর্ণ যে করো উৎস যদি না বাহিরায় হবে কেমনতরো? এই-যে আমার ব্যথার খনি জোগাবে ওই মুকুট-মণি– মরণদুখে জাগাবে মোর জীবনবল্লভে ॥ <iframe width=”420″ height=”315″ src=”https://www.youtube.com/embed/lhaS1BuB0IU” frameborder=”0″ […]

বিস্তারিত »

কোন্‌ খেলা যে খেলব কখন্‌

     কোন্‌ খেলা যে খেলব কখন্‌ ভাবি বসে সেই কথাটাই– তোমার     আপন খেলার সাথি করো, তা হলে আর ভাবনা তো নাই ॥               শিশির-ভেজা সকালবেলা   আজ কি তোমার ছুটির খেলা–               বর্ষণহীন মেঘের মেলা   তার সনে মোর মনকে ভাসাই ॥ তোমার     নিঠুর খেলা খেলবে যে দিন বাজবে সে দিন ভীষণ ভেরী–               ঘনাবে মেঘ, আঁধার হবে, কাঁদবে হাওয়া আকাশ […]

বিস্তারিত »

অনুভূতিতে আঘাত না করে সমাজ বদলানো যায় না

অনুভূতিতে আঘাত করতেই হবে, বিশেষ করে ধর্মানুভূতিতে। এ ছাড়া আর কোনও উপায় নেই। সমাজকে এক জায়গায় দাঁড় করিয়ে রাখলে চলবে না। সমাজ এগোবে না। এগোতে নিলেই প্রশ্ন উঠবে। যারা সমাজটাকে যেমন আছে তেমন রাখতে চায়, তারা কোনওরকম এগিয়ে যাওয়া মানবে না। অন্য কোনও অনুভূতিতে আঘাত লাগলে মানুষ এত বীভৎস বর্বর হয়ে ওঠে না, যত হয়ে […]

বিস্তারিত »

পথে পথে পথের কাব্য

একটা পারিবারিক ছককে কেন্দ্র করে আমার মধ্যে জীবন নামক যে শিল্পবস্তুটির বিকাশ ঘটেছে, তার সত্তার ওপর আমারই একচ্ছত্র অধিকার। অন্য যারা আমার জীবনের সঙ্গে জন্মসূত্রে সংশ্লিষ্ট, তাদের প্রতি সময় পেলে এবং সম্ভব হলে আমি আমার বিবেচনামতো কর্তব্য করব; কিন্তু তা আমার জন্য বাধ্যতামূলক হতে পারে না। নশ্বর জীবনের গায়ে কিছুটা হলেও অনশ্বরতার ছোঁয়া লাগানোর সাধনাই […]

বিস্তারিত »

নভেরাকে নিয়ে লেখা

নভেরাকে, নভেরা আহমেদকে যখন আমি দেখি সেদিন ভাবতেও পারিনি যে, তাকে নিয়ে পূর্ণদৈর্ঘ্য একটি উপন্যাস লিখবো এবং সেই উপন্যাস পাঠকপ্রিয় হবে। দেখা গেল অনেকেই নভেরা সম্পর্কে জানতো না, তার নামও শোনেনি। আমার উপন্যাস তাদেরকে এক অসাধারণ নারীর সঙ্গে পরিচিত করালো। তিনি জনপ্রিয়তার শীর্ষ স্পর্শ করলেন। তাকে নিয়ে কৌতূহল আর আগ্রহের অবধি থাকলো না। অনেক প্রশ্ন […]

বিস্তারিত »

তুমি এবার আমায় লহো হে নাথ,

তুমি এবার আমায় লহো হে নাথ,লহো। এবার তুমি ফিরো না হে– হৃদয় কেড়ে নিয়ে রহো। যে দিন গেছে তোমা বিনা তারে আর ফিরে চাহি না, যাক সে ধুলাতে। এখন তোমার আলোয় জীবন মেলে যেন জাগি অহরহ। কী আবেশে কিসের কথায় ফিরেছি হে যথায় তথায় পথে প্রান্তরে, এবার বুকের কাছে ও মুখ রেখে তোমার আপন বাণী […]

বিস্তারিত »

ছাত্রের পরীক্ষা

ছাত্রের পরীক্ষা

ছাত্র শ্রীমধুসূদন। শ্রীযুক্ত কালাচাঁদ মাস্টার পড়াইতেছেন অভিভাবকের প্রবেশ অভিভাবক। মধুসূদন পড়াশোনো কেমন করছে কালাচাঁদবাবু? কালাচাঁদ। আজ্ঞে, মধুসূদন অত্যন্ত দুষ্ট বটে, কিন্তু পড়াশোনোয় খুব মজবুত। কখনো একবার বৈ দুবার বলে দিতে হয় না। যেটি আমি একবার পড়িয়ে দিয়েছি, সেটি কখনো ভোলে না। অভিভাবক। বটে! তা, আমি আজ একবার পরীক্ষা করে দেখব। কালাচাঁদ। তা, দেখুন না। মধুসূদন। […]

বিস্তারিত »

অসমাপ্ত কবিতা

মাননীয় সভাপতি ….। সভাপতি কে? কে সভাপতি? ক্ষমা করবেন সভাপতি সাহেব, আপনাকে আমি সভাপতি মানি না। তবে কি রবীন্দ্রনাথ? সুভাষচন্দ্র বসু? হিটলার? মাও সে তুং? না, কেউ না, আমি কাউকে মানি না, আমি নিজে সভাপতি এই মহতী সভার। মাউথপিস আমার হাতে এখন, আমি যা বলবো আপনারা তাই শুনবেন। উপস্থিত সুধীবৃন্দ, আমার সংগ্রামী বোনেরা, (একজন অবশ্য […]

বিস্তারিত »

মানুষেরা ভুলে গেছে

মানুষেরা ভুলে গেছে মানুষের ভাষা মানুষ নকল করে নেকড়ের স্বর, আগুন লাগিয়ে নিজে আপনার ঘরে মানুষ রচনা করে আপন কবর। পশুরা মানুষ হতে চায় না এখন, যেহেতু মানুষগুলো পশু হতে চায়; ক্ষমতা হারালে যারা হাতজোড় করে, ক্ষমতা পেলেই তারা বাঘ হয়ে যায়। সহজে দেখে না ফিরে নিজের অতীত, দেখে না সে চোখ খুলে নিজ ভবিষ্যৎ, […]

বিস্তারিত »

হাশেম খানকে কেন প্রয়োজন

হাশেম খান বাংলাদেশের এক ধরনের ইতিহাস সংরক্ষণ করে চলেছেন এবং অন্য পক্ষে সময়ের অভিজ্ঞতা নিজের ভেতর ধারণ করেছেন। এই দুই বোধ শৈল্পিক যা কিছু যা কিছু প্রচার করে তার বিরোধী। হাশেম খান তার জীবন বোধ থেকে বুঝেছেন, প্রলেটারিয়াল বিপ্লব থেকে বুঝেছেন ধনতন্ত্রই ইতিহাসকে ধ্বংস করে, সেজন্য অতীতের দিকে ফিরে ফিরে তাকাতে হয়। হাশেম খান অতীতের […]

বিস্তারিত »

হৃদয়বোধ্য

আর কিছুই হই বা না হই হই যেন ঠিক হৃদয়বোধ্য এই যে বুকে অশ্রু-আবেগ, জলের ধারা অপ্রতিরোধ্য; আকাশে এই মেঘ জমে আর পাতায় জমে শিশির কণা, এই জীবনে তুমি আমার যা কিছু এই সম্ভাবনা। সব ছেড়েছি তুমিই কেবল এখন আমার অগ্রগণ্য, আর কী চাই হই যদি এই তোমার ভালোবাসায় ধন্য! সব মুছে যাই, সব ঝরে […]

বিস্তারিত »

'মাইফ্রেন্ড, মাইফ্রেন্ড'

'মাইফ্রেন্ড, মাইফ্রেন্ড'

ঔপন্যাসিক, কবি, নাট্যকার , ভাস্কর, গ্রাফিক শিল্পী, রাজনৈতিক প্রবক্তা প্রভৃতি গুন্টার গ্রাসের পরিচয়। তবে সবচেয়ে বড় কথা জীবনব্যাপী গ্রাস গভীর অভিনিবেশ সহকারে কোনো না কোনো কাজ করেছেন। লেখালেখি বন্ধ থাকছে তো লেগে গেলেন কাদামাটির ভাস্কর্য গড়ার কাজে, কখনও চলছে আঁকাআঁকির কাজ, ফাঁকে ফাঁকে বেরিয়ে আসছে ক্ষেপণাস্ত্রের চেয়েও লক্ষ্যভেদী, তীব্র একেকটি উজ্জ্বল কবিতা কিংবা দিগন্ত ঝলসানো […]

বিস্তারিত »

মানুষ ও খাঁচার পাখি

মানুষ ও খাঁচার পাখি

চোখ ফোটার পর দেখেছি ভাঙাচোরা একটা দালানবাড়ি। এই ধরনের বাড়িকে বলে পরিত্যক্ত বাড়ি। কেউ বাস করে না। কতকালের পুরনো কে জানে! ছাদ দেয়াল ধসে গেছে, ইটগুলো আছে হাঁ করে। বট অশ্বত্থের চারা গজিয়েছে দেয়ালে কার্নিসে। কোনো কোনোটা বড়ও হয়েছে। জোরে হাওয়া দিলে ডালে পাতায় শন শন করে শব্দ হয়। বিশাল বাড়িটির চারদিকে একসময় দেয়াল ছিল। […]

বিস্তারিত »

তোমারেই আমি চাহিয়াছি প্রিয় শতরূপে শতবার

তোমারেই আমি চাহিয়াছি প্রিয় শতরূপে শতবার জনমে জনমে তাই চলে মোর অনন্ত অভিসার। বনে তুমি যবে ছিলে বনফুল গেয়েছিনু গান আমি বুলবুল ছিলাম তোমার পূজার থালায় চন্দন ফুলহার। তব সংগীতে আমি ছিনু সুর, নৃত্যে নূপুরছন্দ আমি ছিনু তব অমরাবতীতে পারিজাত ফুলগন্ধ। কত বসন্তে কত বরষায় খুঁজেছি তোমায় তারায় তারায় আজিও এসেছি তেমনই আশায় লয়ে স্মৃতি […]

বিস্তারিত »

আমার মা যে গোপাল সুন্দরী

আমার মা যে গোপাল সুন্দরী যেনো এক বৃন্তে কৃষ্ণ কলি অপরাজিতার মঞ্জরী…।। মা আধেক পুরুষ অর্ধ অঙ্গে নারী আধেক কালি আধেক বংশীধারী মার অর্ধ অঙ্গে পীতাম্বর আর অর্ধ অঙ্গে সে দিগম্বরী আমার মা যে গোপাল সুন্দরী…।। মা যে পায়ে প্রেম কুসুম ফোটায় নুপুর পরা সেই চরণ মার সেই হাতে রয় সর্প বলায় যে হাতে প্রলয় […]

বিস্তারিত »
,

অক্টোবর ১৯, ২০১৭,বৃহস্পতিবার

সাথে আছেন

মোট ৮৪ জন ,যার মধ্যে জন নিবন্ধিত , ৮৪ জন অতিথি অনলাইন।

সর্বাধিক মন্তব্য করেছেন

  • Be the first to comment.

সর্বশেষ মন্তব্য